চাঁদপুর ভ্রমণের ইতিবৃত্তান্ত

চাঁদপুর জেলা যে ‘ইলিশের বাড়ি’ হিসেবে খ্যাত সে কথা বোধ করি আমরা সকলেই জানি। ইলিশ মাছের অন্যতম প্রজনন অঞ্চল এই চাঁদপুর। যেটি চট্টগ্রাম বিভাগের নদীবিধৌত একটি অঞ্চল আর অবস্থিত বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে। যদিও একটা সময়ের আগ পর্যন্ত অঞ্চলটি ছিল বৃহত্তর কুমিল্লারই একটি অংশ।

টাটকা ইলিশ খাওয়ার লোভেই বলি আর চর এলাকায় প্রথম পা রাখার জন্যই বলি, সেমিস্টার ফাইনাল শেষ করে এবারের ঘোরাঘুরি হিসেবে জায়গা নির্ধারিত হলো এই চাঁদপুর। কয়েকজন বন্ধু মিলে যাবো। একসাথে বসে পরিকল্পনা করে ফেললাম।

চাঁদপুরের বিখ্যাত ওয়ান মিনিট আইসক্রিম, প্রধান তিনটি চর, বড় স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত আকর্ষনীয় মোলহেড, ট্রেনে করে যাওয়ার প্রথম অভিজ্ঞতা কোনটা রেখে যে কোনটায় ছুটবো আগে সেই নিয়েই রীতিমতো উত্তেজনা চলছে সবার মধ্যে।

মোলহেডে অবস্থিত ইলিশের ভাস্কর্য;

কুমিল্লা থেকে একদিনের ট্যুর যেহেতু রওনা দিতে হবে সকাল সকাল। তবে ট্রেন ছাড়ার সময়সূচির সাথে আমাদের মিলছিলো না বলে বাসে করেই রওনা হলাম সকাল ৭টার বাসে। সবাই মিলে সিদ্ধান্তও নিলাম ফেরার পথে যে করেই হোক ট্রেনে আসা চাই।

বাস ছাড়লো কুমিল্লার জাঙ্গালিয়া বাসস্ট্যান্ড থেকে। বিশ্বরোড, লাকসাম ছাড়িয়ে বাস এগুচ্ছে তরতর করে আর আমরা উপভোগ করছিলাম মন ভোলানো সকালের হাওয়া। রাস্তা কিছুটা খারাপ থাকায় চাঁদপুরে শহরে পৌঁছাতে পৌঁছাতে লাগলো দুই ঘণ্টা প্রায়। বাস থামলো শহরের বাসস্ট্যান্ডে।

You may also like

Leave a Reply

Your email address will not be published.